নববর্ষ সংগীত

হিজরী নববর্ষের সঙ্গীত
-আবছার তৈয়বী
আসন্ন হিজরী নববর্ষ-১৪৩৭ উপলক্ষে ‘ইকরা ইন্টারন্যাশনাল মিডিয়া’সহ বিভিন্ন ইসলামী সাংস্কৃতিক সংগঠনের অনুরোধের প্রেক্ষিতে ‘হিজরী নববর্ষের সঙ্গীত’খানা রচনায় ব্রতী হয়েছি।
আমার কাছে ভালো লাগতো- যদি প্রত্যেকটি সাংস্কৃতিক সংগঠনের জন্য আলাদা আলাদা সঙ্গীত রচনা করতে পারতাম।
কিন্তু জ্ঞানের দৈন্যতা, সময়ের স্বল্পতা এবং ‘সুর-তাল-লয়’ সম্পর্কে অপরিপক্ষতার দরূণ প্রত্যেকের জন্য আলাদা আলাদা ভাবে সঙ্গীত রচনা করতে না পারায় সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি।
আমি আশা করবো- চট্টগ্রাম, ঢাকা ও অন্যান্য যে সকল স্থানে ‘হিজরী বর্ষবরণ অনুষ্ঠান’ হবে, সকল অনুষ্ঠানে সকল শিল্পীগোষ্ঠির সমন্বয়ে নির্বাচিত ‘শায়ের- শিল্পীবৃদ’ সম্মিলিত কন্ঠে আমার এই সঙ্গীতটি গাইবেন।
রমনার বটমূলে বা ডিসি হিলে যেভাবে সম্মিলিত কন্ঠে বাংলা নববর্ষের সঙ্গীত গাওয়া হয়- ঠিক সেভাবে।
‘সুর-তাল লয়’ সম্পর্কে কোন কিছু জানার ইচ্ছা থাকলে অবশ্যই গীতিকারের সাথে যোগাযোগ করবেন- উইদাউথ এনি হেজিটেশন।
আমার অগণিত পাঠক/পাঠিকাসহ সকল বন্ধুদের জানাই অগ্রিম

image

শুভেচ্ছা- ‘শুভ হিজরী নববর্ষ’।
‘কুল্লু আ-ম ওয়া আনতুম বিখাইর’- মা’আস সালাম।
আপনাদের
গুণমুগ্ধ-
আবছার তৈয়বী, আবুধাবি, ইউ.এ.ই।
☆☆☆☆☆☆☆☆☆
হিজরী নববর্ষের সঙ্গীত
-আবছার তৈয়বী
❀✿❀✿❀✿❀✿❀✿❀✿❀✿❀✿❀
বছর ঘুরে আবার এলো মাহে মুহররম
সবাইকে তাই জানাই আজি শুভেচ্ছা স্বাগতম।

মুহররমের এই মাসেতে দুনিয়া সৃজন
আবার হবে এই মাসেতে প্রলয় সংঘটন,
খোদার রঙে রাঙাবো ভাই আমার এই জীবন
ভালোবাসা দিয়ে সবে করবো আপন।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

এই মাসেতে হযরত আদম সৃষ্টি হলো
জান্নাত থেকে এই দুনিয়ায় নেমে এলো,
আদম হাওয়ার দুঃখের জীবন শুরু হলো
আরাফাতে গিয়ে তাঁদের হলো যে মিলন।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

জগত জুড়ে খোদার গজব বন্যা হলো
নবীপুত্র কেনান কাফির ধ্বংস হলো,
এই মাসেতে নূহ নবী রক্ষা পেলো
শুরু হলো নূহ নবীর নতুন এক জীবন।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

মুহররমে নাজাত পেলো নবী ইব্রাহীম
আগুন হলো তাঁহার তরে পরশ শীতল হিম,
মুসলমানের জাতির পিতা নবী ইব্রাহীম
দরুদ পড়ে তাঁহার তরে সকল মুসলিম।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

এই মাসেতে মূসা নবী নাজাত পেলেন
সদলবলে নীল নদীটা পাড়ি দিলেন,
মরলো ডুবে নীল নদীতে জালিম ফেরাউন
শোকরিয়ায় মুসলমানে রোযা করে পালন।
বছর ঘুরে আবার এলো….ঐ

এই মাসেতে আইয়ুব নবী শেফা পেলো
দীর্ঘদিনের রোগটা তাঁহার ভালো হলো,
রূপ-যৌবন আর ক্ষমতা ফিরে পেলো
সবর করে তিনি পেলেন নতুন এক জীবন।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

এই মাসেতে নবী-রাসূল নেয়ামত পেলো
খোদার দানে জীবন তাঁদের ধন্য হলো,
পুণ্যপথে সকলেই তাই সামনে চলো
‘আশূরা’ এই মাসেরই তারিখটা দশম।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

এ মাসেরই স্মৃতিবাহী ফোরাত কারবালা,
মুমিন হৃদে দাগ কাটিল বাড়িল জ্বালা,
চললো নবী বংশের ওপর জুলুমের পালা
দান করিল আলে রাসূল (দ.) নিজেদের জীবন।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

মানবতার প্রতীক হলেন হযরত হোসাইন,
নবী বংশের বাতি তিনি মু’মিনজনের জান,
কারবালাতে হলেন শহীদ দিলেন নিজের প্রাণ
হৃদ মিনারে তাঁর-ই প্রেমের আছে অনুরণ।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

এদেশেরই সূর্য সন্তান ওলি-আওলিয়া
জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সকলের পিয়া,
জ্বালাবো আজ মনের মাঝে প্রেমের-ই দিয়া
চরিত্র তাঁদের জানো অতি অনুপম।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

নতুন সালের নতুন দিনে এসো তুমি ভাই
হিংসা-দ্বেষ আজ ভুলে সবে সমুখে তাকাই,
ভালোবাসার শক্তি বেশি তৈয়বী বলে যাই
শান্তি দিয়ে গড়বো মোরা বিশ্ব অনুপম।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

আলো ভরা ছায়া ঘেরা আমার-ই দেশখানি
দেশপ্রেমকে ঈমানের-ই অঙ্গ সবে জানি,
অপসংস্কৃতি রুখতে হলে করো মরণ পণ
প্রয়োজনে হবো সবাই সিপাহী দুর্দম।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

এসো তবে নতুন করে জীবন শুরু করি
বাতিল যতো পায়ে দলে নবীর পথটি ধরি,
এলোমেলো জীবনটাকে ধন্য সবে করি
আজ শুধু নয়- সারা বছর ডাকিব হরদম।
বছর ঘুরে আবার এলো…..ঐ

তারিখ: ০৭ অক্টোবর, ২০১৫
আবুধাবি, ইউ.এ.ই।

Posted from WordPress for Android

Advertisements